বিজ্ঞপ্তি :

সাংবাদিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2023 :- বহির্বিশ্ব সহ বাংলাদেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আবেদনের যোগ্যতা :- বয়স:- সর্বনিম্ন ২০ বছর হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা:- আবেদনকারীকে সর্বনিন্ম এইচএসসি পাশ হতে হবে। কমপক্ষে ১ বছরে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। (তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের ক্ষেত্রে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হতে হবে অথবা কমপক্ষে ১ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।) অতিরিক্ত যোগ্যতা:- স্মার্ট ফোন থাকতে হবে। নিজেদের প্রকাশিত নিউজ অবশ্যই নিজে ফেসবুকে শেয়ার করতে হবে একই সঙ্গে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করতে হবে। এছাড়াও প্রতিদিন অন্তত ০৩ টি নিউজ শেয়ার করতে হবে। (বাধ্যতামূলক) অবশ্যই অফিস থেকে দেয়া এ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে। নিউজের ছবি এবং নিউজের সঙ্গে ভিডিও পাঠাতে হবে ( ছবি কপি করা যাবে না কপি করলে তা উল্লেখ করতে হবে)। বেতন ভাতা :- মাসিক বেতন ও বিজ্ঞাপনের কমিশন আলোচনা সাপেক্ষে। আবেদন করতে আপনাকে যা করতে হবে :- আমাদের ই-মেইলের ঠিকানায় ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (Cv), সিভির সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র এর কপি, সর্ব্বোচ্চ শিক্ষাগত সনদ এর কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, অভিজ্ঞতা থাকলে প্রমাণ স্বরুপ তথ্য প্রেরণ করতে হবে । মনে রাখবেন :- সিভি অবশ্যই নিজের ব্যক্তিগত মেইল থেকে পাঠাতে হবে। কারণ যে মেইল থেকে সিভি পাঠাবেন অফিস থেকে সেই মেইলেই রিপ্লাই দেওয়া হবে। ই–মেইল পাঠাতে বিষয় বস্তু অর্থাৎ Subject–এ লিখতে হবে কোন জেলা/ উপজেলা/ ক্যাম্পাস প্রতিনিধি। আমাদের সাথে যোগাযোগের ঠিকানা :- Email:- bondhantv@gmail.com টেলিফোন:- +8809638788837, +8801911040586 (Whatsapp), সকাল ৯টা থেকে রাত ১১.৫৯ পর্যন্ত। আমাদের নিয়োগ পদ্ধতি :- প্রথমে আপনার কাগজ যাচাই বাছাই করা হবে। আপনি প্রাথমিক ভাবে চুড়ান্ত হলে সেটি সম্পাদকের কাছে প্রেরণ করা হবে। সর্বশেষ সম্পাদক কর্তৃক চুড়ান্ত হলে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে মোবাইল এবং ইমেল এর মাধ্যমে। আপনাকে আমাদের ট্রেনিং এবং অবজারভেশন ফেসবুক গ্রুপে এড করা হবে। তারপর আপনাকে ৫ দিন নিউজ পাঠাতে বলা হবে। এর পর চুড়ান্ত নিয়োগের ১ মাসের মধ্যে আপনার কার্ড প্রেরণ করা হবে। নিউজ পাঠানোর মাধ্যম:- আমাদের মেইল আইডি, মেসেঞ্জার গ্রুপ, ইউজার আইডির মাধ্যমে পাঠাতে পারবেন। নিউজ অবশ্যই ইউনিকোড ফরমেটে পাঠাতে হবে। নিউজের সাথে ছবি থাকলে তা পাঠাতে হবে। নিউজের যদি কোন তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তা প্রেরণ করতে হবে। বি:দ্র: সকল শর্ত পরিবর্তন, পরিমার্জন এবং বর্ধিত করনের অধিকার কর্তৃপক্ষের কাছে সংরক্ষিত। মন্তব্য: BondhanTv – বন্ধন টিভি আমাদের নিজস্ব আয়ে চ্যানেলটি পরিচালিত হয়। আমরা কোন গ্রুপ বা কোম্পানির অর্থ বা কোন স্পন্সরের অর্থদ্বারা পরিচালিত নয়।

শুষ্ক মৌসুমে যমুনার ভাঙন, বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি


বন্ধন টিভি ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪, ১০:২০ পূর্বাহ্ণ
শুষ্ক মৌসুমে যমুনার ভাঙন, বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি

শুষ্ক মৌসুমেই সিরাজগঞ্জের যমুনা নদীর ডানতীরে দেখা দিয়েছে তীব্র নদী ভাঙন। গত কয়েক দিনের ভাঙনে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে অর্ধশত বসতভিটা, গাছপালাসহ বিস্তীর্ণ ফসলি জমি।

যমুনা নদীর এই আকস্মিক এই ভাঙনে দিশেহারা সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার খুকনি, জালালপুর ও ব্রাহ্মণগ্রাম, হাটপাচিল, আর কান্দিসহ বেশ কয়েকটি এলাকার মানুষ। ভাঙন কবলিত অসহায় মানুষগুলো এখন খোলা আকাশের নিয়ে জীবন যাপন করছে। আর নদী তীরবর্তী মানুষেরা ভাঙন আতঙ্কে তাদের বাড়ি ঘর অন্যত্র সরিয়ে নিচ্ছেন।
গত কয়েকদিন ধরেই অব্যাহত রয়েছে এই ভাঙন তাণ্ডব। অসময়ে যমুনায় হঠাৎ ভাঙন দেখা দেওয়ায় শাহজাদপুর ও এনায়েতপুরের প্রায় ৮টি গ্রামের অর্ধশত বসতবাড়ি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। সেইসঙ্গে নদীতে বিলীন হয়েছে বেশ কয়েকটি কাঁচা-পাকা স্থাপনা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিস্তীর্ণ ফসলি জমি। ভাঙনে সব হারানো অসহায় মানুষগুলো এখন ঠাঁই হয়েছে খোলা আকাশের নিচে। ঘরবাড়ি আর ভিটেমাটি হারিয়ে কোনো মতে রান্নাবান্না করে চলছে তাদের মানবেতর জীবন। আর এখনো যারা নদীতীরে রয়েছে ভাঙন আতঙ্কে তাদের প্রতিটি রাত কাটছে র্নিঘুম। অনেকেই তাদের ঘরবাড়ি সরিয়ে অন্যত্র নিয়ে যাচ্ছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নজরদারির অভাব ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতিতেই সঠিক সময়ে নদীতীর রক্ষা কাজ শেষ না হওয়ায় এই ভাঙন দেখা দিয়েছে বলে অভিযোগ ভাঙনকবলিতদের।

ভাঙনে ঘরবাড়ি হারানো হারান শেখ বলেন, ৫ দিন আগেও আমার ভিটেমাটি সব ছিল। কিন্তু এখন আমার আর কিছুই নেই। ঘর বাড়ি ভেঙে সবকিছু পাশের মাঠে রেখেছি।

নদী তীরে বসবাসকারী রহমত আলী বলেন, নদী ভাঙতে ভাঙতে এখন আমার বাড়ির কাছে এসে ঠেকেছে। যখন তখন আমার বাড়িও নদী গর্ভে বিলীন হতে পারে। এতদিন ধরে ভাঙন অব্যাহত থাকলেও পানি উন্নয়ন বোর্ড কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

আরও পড়ুনঃ কেরানীগঞ্জে রাস্তার পাশ থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান বলেন, অসময়ের এই ভাঙনরোধে জরুরি ভিত্তিতে কজ চলমান রয়েছে। সেইসঙ্গে নদী ডানতীরে সাড়ে ৬ কিলোমিটার এলাকায় স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের কাজও চলছে।

জেলার এনায়েতপুর থেকে শাহজাদপুর পর্যন্ত সারে ৬ কিলোমিটার এলাকায় প্রায় ৬৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে যমুনার নদীর ডানতীরে স্থায়ী বাঁধের প্রকল্প চলমান রয়েছে।

Spread the love
Link Copied !!