বিজ্ঞপ্তি :

সাংবাদিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2023 :- বহির্বিশ্ব সহ বাংলাদেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আবেদনের যোগ্যতা :- বয়স:- সর্বনিম্ন ২০ বছর হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা:- আবেদনকারীকে সর্বনিন্ম এইচএসসি পাশ হতে হবে। কমপক্ষে ১ বছরে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। (তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের ক্ষেত্রে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হতে হবে অথবা কমপক্ষে ১ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।) অতিরিক্ত যোগ্যতা:- স্মার্ট ফোন থাকতে হবে। নিজেদের প্রকাশিত নিউজ অবশ্যই নিজে ফেসবুকে শেয়ার করতে হবে একই সঙ্গে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করতে হবে। এছাড়াও প্রতিদিন অন্তত ০৩ টি নিউজ শেয়ার করতে হবে। (বাধ্যতামূলক) অবশ্যই অফিস থেকে দেয়া এ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে। নিউজের ছবি এবং নিউজের সঙ্গে ভিডিও পাঠাতে হবে ( ছবি কপি করা যাবে না কপি করলে তা উল্লেখ করতে হবে)। বেতন ভাতা :- মাসিক বেতন ও বিজ্ঞাপনের কমিশন আলোচনা সাপেক্ষে। আবেদন করতে আপনাকে যা করতে হবে :- আমাদের ই-মেইলের ঠিকানায় ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (Cv), সিভির সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র এর কপি, সর্ব্বোচ্চ শিক্ষাগত সনদ এর কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, অভিজ্ঞতা থাকলে প্রমাণ স্বরুপ তথ্য প্রেরণ করতে হবে । মনে রাখবেন :- সিভি অবশ্যই নিজের ব্যক্তিগত মেইল থেকে পাঠাতে হবে। কারণ যে মেইল থেকে সিভি পাঠাবেন অফিস থেকে সেই মেইলেই রিপ্লাই দেওয়া হবে। ই–মেইল পাঠাতে বিষয় বস্তু অর্থাৎ Subject–এ লিখতে হবে কোন জেলা/ উপজেলা/ ক্যাম্পাস প্রতিনিধি। আমাদের সাথে যোগাযোগের ঠিকানা :- Email:- bondhantv@gmail.com টেলিফোন:- +8809638788837, +8801911040586 (Whatsapp), সকাল ৯টা থেকে রাত ১১.৫৯ পর্যন্ত। আমাদের নিয়োগ পদ্ধতি :- প্রথমে আপনার কাগজ যাচাই বাছাই করা হবে। আপনি প্রাথমিক ভাবে চুড়ান্ত হলে সেটি সম্পাদকের কাছে প্রেরণ করা হবে। সর্বশেষ সম্পাদক কর্তৃক চুড়ান্ত হলে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে মোবাইল এবং ইমেল এর মাধ্যমে। আপনাকে আমাদের ট্রেনিং এবং অবজারভেশন ফেসবুক গ্রুপে এড করা হবে। তারপর আপনাকে ৫ দিন নিউজ পাঠাতে বলা হবে। এর পর চুড়ান্ত নিয়োগের ১ মাসের মধ্যে আপনার কার্ড প্রেরণ করা হবে। নিউজ পাঠানোর মাধ্যম:- আমাদের মেইল আইডি, মেসেঞ্জার গ্রুপ, ইউজার আইডির মাধ্যমে পাঠাতে পারবেন। নিউজ অবশ্যই ইউনিকোড ফরমেটে পাঠাতে হবে। নিউজের সাথে ছবি থাকলে তা পাঠাতে হবে। নিউজের যদি কোন তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তা প্রেরণ করতে হবে। বি:দ্র: সকল শর্ত পরিবর্তন, পরিমার্জন এবং বর্ধিত করনের অধিকার কর্তৃপক্ষের কাছে সংরক্ষিত। মন্তব্য: BondhanTv – বন্ধন টিভি আমাদের নিজস্ব আয়ে চ্যানেলটি পরিচালিত হয়। আমরা কোন গ্রুপ বা কোম্পানির অর্থ বা কোন স্পন্সরের অর্থদ্বারা পরিচালিত নয়।

কৃষক বোরহানকে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই হত্যা


বন্ধন টিভি ডেস্ক
প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১, ২০২৪, ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ
কৃষক বোরহানকে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই হত্যা

একটি হত্যা মামলার বাদী পক্ষকে ফাঁসাতেই পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার কৃষক মো. বোরহান উদ্দিনকে।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যা ও মূল পরিকল্পনায় জড়িত জাকির হোসেন ওরফে অজুকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

রোববার (৩১ মার্চ) সকালে ঢাকার কামরাঙ্গীরচর উপজেলার মধ্য রসুলপুর এলাকা থেকে র‌্যাব-১৪, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার জাকির হোসেন (২৮) কটিয়াদী উপজেলার ধুলদিয়া ইউনিয়নের নাগেগ্রাম পূর্বপাড়া এলাকার ছকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি বিচারাধীন একটি হত্যা মামলার প্রধান আসামি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি জাকির হোসেন হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন।

র‌্যাব জানায়, গত ২৬ মার্চ বিকেলে বাজারে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন কটিয়াদী উপজেলার সহস্রাম ধুলদিয়া ইউনিয়নের নাগেগ্রামের কৃষক মো. বোরহান। এরপর তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরদিন দুপুরে নাগেরগ্রাম দত্তের বাড়ির কাছে একটি বিল থেকে তার ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ২৮ মার্চ নিহত বোরহানের মা মোছা. পারভিন আক্তার বাদী হয়ে কটিয়াদী থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা করেন। এরপরই হত্যাকাণ্ডের কারণ উদঘাটন ও হত্যার সঙ্গে জড়িতদের ধরতে থানা পুলিশের পাশাপাশি মাঠে নামে র‌্যাব।

আরও পড়ুনঃ ফেনীতে সড়কে কাজের অনিয়মে, বাধা দেওয়ায় এলজিইডি কর্মকর্তাকে মারধর

র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার মো. আশরাফুল কবির জানান, ছায়া তদন্তকালে নিহত রোরহানের দূর সম্পর্কের চাচা মো. জাকির হোসেন এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত বলে নিশ্চিত হয় র‌্যাব। পরে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে রোববার ঢাকার কামরাঙ্গীরচর উপজেলার মধ্য রসুলপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

র‌্যাব জানায়, আসামি জাকির হোসেন একই এলাকার নিজাম উদ্দিনের ছেলে এরশাদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি। এ মামলায় তিনি জেলহাজতে ছিলেন। জামিনে বের হয়ে মামলাটি আপোস করার জন্য বারবার বাদী নিজাম উদ্দিনকে চাপ দেন। কিন্তু নিজাম উদ্দিন আপোসে রাজি হননি। তাই নিজাম উদ্দিনকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর পরিকল্পনা করেন জাকির হোসেন।

মো. বোররহারের পরিবারের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে আসামি জাকির হোসেন ওরফে অজুর আত্মীয় স্বজনদের বিরোধ ছিল। তাই জাকির হোসেনসহ অন্যান্য ৫/৬ জন মিলে মো. রোরহানকে হত্যা করে নিজাম উদ্দিনের ওপর দায় চাপানোর পরিকল্পনা করে। গত ২৬ মার্চ মো. বোরহানকে কৌশলে ডেকে নেন জাকির হোসেন। এরপর অন্য ৪/৫ জন মিলে হত্যা করে তার মরদেহ বিলে ফেলে রাখে। গ্রেফতার হওয়া মো. জাকির হোসেনকে কটিয়াদী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Spread the love
Link Copied !!