বিজ্ঞপ্তি :

সাংবাদিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2023 :- বহির্বিশ্ব সহ বাংলাদেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আবেদনের যোগ্যতা :- বয়স:- সর্বনিম্ন ২০ বছর হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা:- আবেদনকারীকে সর্বনিন্ম এইচএসসি পাশ হতে হবে। কমপক্ষে ১ বছরে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। (তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের ক্ষেত্রে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হতে হবে অথবা কমপক্ষে ১ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।) অতিরিক্ত যোগ্যতা:- স্মার্ট ফোন থাকতে হবে। নিজেদের প্রকাশিত নিউজ অবশ্যই নিজে ফেসবুকে শেয়ার করতে হবে একই সঙ্গে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করতে হবে। এছাড়াও প্রতিদিন অন্তত ০৩ টি নিউজ শেয়ার করতে হবে। (বাধ্যতামূলক) অবশ্যই অফিস থেকে দেয়া এ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে। নিউজের ছবি এবং নিউজের সঙ্গে ভিডিও পাঠাতে হবে ( ছবি কপি করা যাবে না কপি করলে তা উল্লেখ করতে হবে)। বেতন ভাতা :- মাসিক বেতন ও বিজ্ঞাপনের কমিশন আলোচনা সাপেক্ষে। আবেদন করতে আপনাকে যা করতে হবে :- আমাদের ই-মেইলের ঠিকানায় ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (Cv), সিভির সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র এর কপি, সর্ব্বোচ্চ শিক্ষাগত সনদ এর কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, অভিজ্ঞতা থাকলে প্রমাণ স্বরুপ তথ্য প্রেরণ করতে হবে । মনে রাখবেন :- সিভি অবশ্যই নিজের ব্যক্তিগত মেইল থেকে পাঠাতে হবে। কারণ যে মেইল থেকে সিভি পাঠাবেন অফিস থেকে সেই মেইলেই রিপ্লাই দেওয়া হবে। ই–মেইল পাঠাতে বিষয় বস্তু অর্থাৎ Subject–এ লিখতে হবে কোন জেলা/ উপজেলা/ ক্যাম্পাস প্রতিনিধি। আমাদের সাথে যোগাযোগের ঠিকানা :- Email:- bondhantv@gmail.com টেলিফোন:- +8809638788837, +8801911040586 (Whatsapp), সকাল ৯টা থেকে রাত ১১.৫৯ পর্যন্ত। আমাদের নিয়োগ পদ্ধতি :- প্রথমে আপনার কাগজ যাচাই বাছাই করা হবে। আপনি প্রাথমিক ভাবে চুড়ান্ত হলে সেটি সম্পাদকের কাছে প্রেরণ করা হবে। সর্বশেষ সম্পাদক কর্তৃক চুড়ান্ত হলে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে মোবাইল এবং ইমেল এর মাধ্যমে। আপনাকে আমাদের ট্রেনিং এবং অবজারভেশন ফেসবুক গ্রুপে এড করা হবে। তারপর আপনাকে ৫ দিন নিউজ পাঠাতে বলা হবে। এর পর চুড়ান্ত নিয়োগের ১ মাসের মধ্যে আপনার কার্ড প্রেরণ করা হবে। নিউজ পাঠানোর মাধ্যম:- আমাদের মেইল আইডি, মেসেঞ্জার গ্রুপ, ইউজার আইডির মাধ্যমে পাঠাতে পারবেন। নিউজ অবশ্যই ইউনিকোড ফরমেটে পাঠাতে হবে। নিউজের সাথে ছবি থাকলে তা পাঠাতে হবে। নিউজের যদি কোন তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তা প্রেরণ করতে হবে। বি:দ্র: সকল শর্ত পরিবর্তন, পরিমার্জন এবং বর্ধিত করনের অধিকার কর্তৃপক্ষের কাছে সংরক্ষিত। মন্তব্য: BondhanTv – বন্ধন টিভি আমাদের নিজস্ব আয়ে চ্যানেলটি পরিচালিত হয়। আমরা কোন গ্রুপ বা কোম্পানির অর্থ বা কোন স্পন্সরের অর্থদ্বারা পরিচালিত নয়।

সুপারী মহাজনের চেকে ১২ লাখ টাকা পাওনা দেখিয়ে মিথ্যে মামলা


মালিকুজ্জামান কাকা, যশোর
প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৩, ২০২২, ৬:৩৪ অপরাহ্ণ
সুপারী মহাজনের চেকে ১২ লাখ টাকা পাওনা দেখিয়ে মিথ্যে মামলা

সুপারী মহাজনের চেকে ১২ লাখ টাকা পাওনা দেখিয়ে মিথ্যে নামে মামলা। মহাজন পাওনা চেক ফেরত না দেওয়ায় এক খুচরা সুপারী বিক্রেতা বর্তমানে চরম আর্থিক ক্ষতির স্বীকার হয়েছেন। ঐ সুপারী মহাজন চেকে ইচ্ছে খুশি ১২ লক্ষ টাকার অঙ্ক পাওনা দেখিয়ে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী সদর আদালত যশোরে একটি মামলা করেছেন। মামলা নম্বর সি.আর-১৯৬/২২, তাং-০২/১০/২০২২। ধারা- এন আই এ্যাক্ট এর ১৩৮ ধারা। ভূক্তভোগী আসামি আবুল কালাম গাজী এ বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্ত দাবি করেছেন। আবুল কালাম গাজী ১১ নম্বর রামনগর ইউনিয়নের সিরাজসিঙ্গার মৃত হোসেন আলী গাজীর পুত্র। তিনি সতীঘাটা কামালপুরের আহসান উল্লাহ পাটওয়ারীর পুত্র আবুল কালামের কাছ থেকে সুপারী নিয়ে বিক্রি করতেন কমিশনের ভিত্তিতে।

জানা গেছে, ২০০৯/১০ সাল থেকের্ ফঁড়ে আবুল কালাম গাজী মহাজন আবুল কালামের কাছ থেকে সুপারী নিয়ে বিক্রি করতেন। ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ সুপারী নিতেন। এর বিপরীতে তিনি রুপালী ব্যাংক লি: এর মনিরামপুর শাখার সেভিংস একাউন্ট নম্বর-৪৮২০০১০০০৯৭০৫ এর একটি চেক দেন। চেকে কোন টাকার অংক উল্লেখ ছিল না। ২০২১ সালে চেকটি নেয় ডাচ বাংলা ব্যাংক ও শিশু নিলয় এর সমিতি থেকে আবুল কালাম ঋন নেন সেসময় তিনি সিরাজসিঙ্গার আবুল কালাম গাজীর চেক পাতা জমা দেন। সম্পর্কের খাতিরে এই চেক লেণদেন হয়। এরপর চে ফেরত চান ২০২১ সালের শেষ দিকে। সে ফেরত না দেওয়ায় চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে আবারো চেক ফেরত চান। ফেব্রুয়ারি মাসে কয়েকবার চেক ফেরত চাইলে সে চেকটি ফেরত না দিয়ে বার বার বলে দিবানে দিবানে। এরপর সেখানে ১২ লাখ টাকা পাওনা বসিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলাটি করে দেন।

হঠাৎ আবুল কালাম গাজী গ্রামবাসীর কাছে শোনেন সতীঘাটা কামালপুরের আবুল কালাম তার কাছে ১২ লাখ টাকা পাওনা দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা করেছেন। এক্ষেত্রে স্বাক্ষী বাদি নিজে ও ডাচ বাংলা ব্যাংকের যশোর শাখার ম্যানেজারসহ আরো অনেকে। এলাকায় এ বিষয়টি নিয়ে সুধীজনদের দুইবার শালিষ মীমাংষা হয়েছে। যার একটি হয় সতীঘাটা বাজারে, আরেকটি কুয়াদায় যেখানে অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। সেখানে সতীঘাটা কামালপুরের আবুল কালাম চার লক্ষ টাকা দাবি করে তাহলে সিরাজসিঙ্গার আবুল কালাম গাজীর নামে কোন মামলা না করার নিশ্চয়তা দেন। তবে এরপর গেল অক্টোবরে তিনি মামলা করে টাকা দাবি করেছেন। এখানে তিনি চরম প্রতারনা করেছেন বলে অনুমিত হয়।

আরও পড়ুন: আরবপুর ইউনিয়ন উপ নির্বাচন নৌকা মার্কায় শাহারুল ইসলাম জয়ী

সিরাজসিঙ্গার আবুল কালাম গাজী জানান, ব্যবসার লেনদেন হিসাবে কিছু টাকা পাওনা হতে পারে সুপারী মহাজন আবুল কালাম। তবে তা কোনভাবেই ১০/১২ লাখ টাকা নয়। এখানে তিনি সরলার সুযোগ কাজে লাগিয়ে চরম প্রতারনা করেছেন। মামলা হওয়ায় তিনি অযথা হয়রানি হচ্ছেন। এমনকি সামাজিক ভাবেও তিনি নিগৃহিত হচ্ছেণ এই হত দরিদ্র ফড়ে আবুল কালাম গাজী। তিনি এ বিষয়ে যথাযথ তদন্ত দাবি করে প্রকৃত সত্য উদঘাটনের আহবান জানিয়েছেন।

Spread the love
Link Copied !!