বিজ্ঞপ্তি :

সাংবাদিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2023 :- বহির্বিশ্ব সহ বাংলাদেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় (আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আবেদনের যোগ্যতা :- বয়স:- সর্বনিম্ন ২০ বছর হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা:- আবেদনকারীকে সর্বনিন্ম এইচএসসি পাশ হতে হবে। কমপক্ষে ১ বছরে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। (তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের ক্ষেত্রে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হতে হবে অথবা কমপক্ষে ১ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।) অতিরিক্ত যোগ্যতা:- স্মার্ট ফোন থাকতে হবে। নিজেদের প্রকাশিত নিউজ অবশ্যই নিজে ফেসবুকে শেয়ার করতে হবে একই সঙ্গে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করতে হবে। এছাড়াও প্রতিদিন অন্তত ০৩ টি নিউজ শেয়ার করতে হবে। (বাধ্যতামূলক) অবশ্যই অফিস থেকে দেয়া এ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে। নিউজের ছবি এবং নিউজের সঙ্গে ভিডিও পাঠাতে হবে ( ছবি কপি করা যাবে না কপি করলে তা উল্লেখ করতে হবে)। বেতন ভাতা :- মাসিক বেতন ও বিজ্ঞাপনের কমিশন আলোচনা সাপেক্ষে। আবেদন করতে আপনাকে যা করতে হবে :- আমাদের ই-মেইলের ঠিকানায় ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (Cv), সিভির সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র এর কপি, সর্ব্বোচ্চ শিক্ষাগত সনদ এর কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, অভিজ্ঞতা থাকলে প্রমাণ স্বরুপ তথ্য প্রেরণ করতে হবে । মনে রাখবেন :- সিভি অবশ্যই নিজের ব্যক্তিগত মেইল থেকে পাঠাতে হবে। কারণ যে মেইল থেকে সিভি পাঠাবেন অফিস থেকে সেই মেইলেই রিপ্লাই দেওয়া হবে। ই–মেইল পাঠাতে বিষয় বস্তু অর্থাৎ Subject–এ লিখতে হবে কোন জেলা/ উপজেলা/ ক্যাম্পাস প্রতিনিধি। আমাদের সাথে যোগাযোগের ঠিকানা :- Email:- bondhantv@gmail.com টেলিফোন:- +8802226663556, +8801911040586 (Whatsapp), সকাল ৯টা থেকে রাত ১১.৫৯ পর্যন্ত। আমাদের নিয়োগ পদ্ধতি :- প্রথমে আপনার কাগজ যাচাই বাছাই করা হবে। আপনি প্রাথমিক ভাবে চুড়ান্ত হলে সেটি সম্পাদকের কাছে প্রেরণ করা হবে। সর্বশেষ সম্পাদক কর্তৃক চুড়ান্ত হলে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে মোবাইল এবং ইমেল এর মাধ্যমে। আপনাকে আমাদের ট্রেনিং এবং অবজারভেশন ফেসবুক গ্রুপে এড করা হবে। তারপর আপনাকে ৫ দিন নিউজ পাঠাতে বলা হবে। এর পর চুড়ান্ত নিয়োগের ১ মাসের মধ্যে আপনার কার্ড প্রেরণ করা হবে। নিউজ পাঠানোর মাধ্যম:- আমাদের মেইল আইডি, মেসেঞ্জার গ্রুপ, ইউজার আইডির মাধ্যমে পাঠাতে পারবেন। নিউজ অবশ্যই ইউনিকোড ফরমেটে পাঠাতে হবে। নিউজের সাথে ছবি থাকলে তা পাঠাতে হবে। নিউজের যদি কোন তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তা প্রেরণ করতে হবে। বি:দ্র: সকল শর্ত পরিবর্তন, পরিমার্জন এবং বর্ধিত করনের অধিকার কর্তৃপক্ষের কাছে সংরক্ষিত। মন্তব্য: BondhanTv – বন্ধন টিভি আমাদের নিজস্ব আয়ে চ্যানেলটি পরিচালিত হয়। আমরা কোন গ্রুপ বা কোম্পানির অর্থ বা কোন স্পন্সরের অর্থদ্বারা পরিচালিত নয়।

ভারতের কাছে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল


সিলেট ক্রীড়া প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৮, ২০২২, ৬:০০ অপরাহ্ণ
ভারতের কাছে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল

বড় দলের বিপক্ষে খেলতে নামলেই যেন কেমন খেই হারিয়ে ফেলে বাংলার নারীরা। পাকিস্তানের পর ভারতের বিপক্ষে ম্যাচেও যেটির প্রমাণ পাওয়া গেল। কদিন আগে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়া বাংলাদেশের কাছে চলতি নারী এশিয়া কাপে প্রত্যাশা ছিল অনেক। এছাড়া টুর্নামেন্টটির বর্তমান চ্যাম্পিয়নও বাংলার বাঘিনীরা। কিন্তু তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষ থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়ার বিপক্ষে জয় ছাড়া তেমন আশানুরূপ পারফর্ম করতে পারেনি বাংলাদেশ।

২০১৮ সালে ভারতকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। শনিবার (৮ অক্টোবর) ম্যাচেও একটা জম্পেশ লড়াই দেখার অপেক্ষায় ছিল সমর্থকরা। কিন্তু শক্তিশালী ভারত দেখিয়ে দিল কেন তারা দক্ষিণ এশিয়ার সেরা। ব্যাট হাতে স্মৃতি মান্দানা ও শেফালি বার্মাদের আধিপত্যের দিনে বল হাতেও দারুণ করলেন দীপ্তিরা।

সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখার ম্যাচে খেলতে নেমে নিগার সুলতানা জ্যোতিরা হেরে গেছে ৬৯ রানের বড় ব্যবধানে। অন্যদিকে, চলতি টুর্নামেন্টে পাঁচ ম্যাচ খেলে চার জয়ে সেমিফাইনালের পথে এক পা দিয়ে রাখল ভারত।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি। যদিও শেষ পর্যন্ত রুমানার ঘূর্ণিতে ভারতকে ১৫৯ রানে আটকে ফেলা গেছে। কিন্তু রান তাড়ায় যেভাবে খেলা দরকার ছিল, সেখানে পুরোপুরি ব্যর্থ বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ফলস্বরুপ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১০০ করতে পেরেছে স্বাগতিকরা।

আরও পড়ুনঃ  পাকিস্তান নারী ক্রিকেটের ‘প্রিন্সেস’ ডায়না

মন্থর ব্যাটিংয়ে ইনিংস শুরু করেছিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার মুর্শিদা ও ফারজানা। কিন্তু যখনই হাত খুলে খেলার দরকার ছিল তখনই উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এসেছেন তারা। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ সংগ্রহ কাপ্তান নিগার সুলতানা জ্যোতির। সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন তিনি। এছাড়া ফারজানার ৩০ ও মুর্শিদার ২১ ছাড়া কেউই দুই অঙ্কের কোটা পার করতে পারেননি।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ঝোড়ো শুরু পায় ভারত। স্মৃতি মান্দানা-শেফালি বার্মা দুজনেই শুরু থেকে বোলারদের ওপর চড়াও হতে থাকেন। ভারতের দুই ওপেনার কতটা আগ্রাসী ছিলেন দুটি ওভারের পরিসংখ্যান দেখলেই বোঝা যাবে। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে দুই চার, এক ছয়ে ১৭ রান নেন শেফালি। ষষ্ঠ ওভারে নাহিদাকে টানা তিন চার মারেন স্মৃতি মান্দানা। এক ওভারেই ১৭ রান দেন বাংলাদেশের সেরা স্পিনার। ফলস্বরূপ পাওয়ার প্লেতে কোনো উইকেট না হারিয়ে ভারত তুলে নেয় ৫৯ রান।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে হারের পর যেন চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞা করেই মাঠে নেমেছিল ভারত। বাংলাদেশের বোলারদের ওপর প্রতি ওভারেই চড়াও হন তারা। ১০ ওভার শেষে ৯১ রান তুলে নেন স্মৃতি ও শেফালি জুটি। ভারতের অন্যতম সফল এ জুটি এদিন কঠিন পরীক্ষা নিলেন বাংলাদেশের বোলারদের।

Spread the love
Link Copied !!